পৃথিবীর অন্যতম সভ্য ও সুন্দর দেশ জাপান, আমাদের দেশ থেকে অনেকেই জাপান যাওয়ার কথা ভেবে থাকেন। কিন্ত তাদের মধ্যেই অনেকেই জানেনা জাপান যাওয়ার জন্য কি কি প্রয়োজন, তাদের কথাই ভেবেই আজ Feeglee.com নিয়ে এলো জাপান ভ্রমন করার জন্য যা যা থাকা জরুরী।

পাসপোর্টঃ
জাপান যাওয়ার জন্য আপনার প্রথমেই যেটি প্রয়োজন সেটি হলো পাসপোর্ট, ৬ মাস মেয়াদ আছে এমন পাসপোর্ট থাকতে হবে আপনার। যদি আপনার ৬ মাস মেয়াদের পাসপোর্ট থাকে তবে আপনি জাপান ভ্রমনের জন্য এক ধাপ এগিয়ে গেলেন।


জাতীয় পরিচয় পত্রঃ-
আপনার যে জাতীয় পরিচয় পত্র বা এনআইডি কার্ডের ফটোকপি লাগবে, আর বাচ্চাদের ক্ষেত্রে জন্ম নিবন্ধন সনদ-এর ফটোকপি লাগবে।

আপনার ছবিঃ-
আপনার ২ কপি সদ্য তোলা রঙ্গিন ছবির প্রয়োজন হবে। ছবি হতে হবে পাসপোর্ট সাইজের, এবং সাদা বাকগ্রাউন্ড থাকতে হবে, ম্যাট পেপার ল্যাব প্রিন্ট এর হতে হবে ছবি।

ব্যাংক স্টেটমেন্টঃ-
আপনার ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট ও ব্যাংক সল্ভেন্সি সার্টিফিকেট দরকার হবে। ব্যাংকের সীল ও স্বাক্ষর সহ অরিজিনাল কপি ও ১ সেট ফটোকপি করে জমা দিতে হবে আপনাকে।


ট্রেড লাইসেন্সঃ-
আপনি যদি ব্যবসায়ী হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনাকে আপনার ব্যাবসার ট্রেড লাইসেন্স –এর ফটোকপি সহ ইংরেজি অনুবাদ ও নোটারাইজড এর অরিজিনাল কপি জমা দিতে হবে। কোম্পানির দুই কপি ইংরেজি অনুবাদ ও নোটারাইজড এর অরিজিনাল কপি ও ইংরেজী অক্ষরে ছাপা দুই কপি ভিজিটিং কার্ড দরকার হবে।

N.O.C:-
আর আপনি যদি বেসরকারি চাকুরিজীবী হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে N.O.C–নো অবজেকশন সার্টিফিকেট এর অরিজিনাল কপি ও ১ সেট ফটোকপি ও ইংরেজী অক্ষরে ছাপা দুই কপি ভিজিটিং কার্ড দরকার হবে।

অবসর প্রাপ্তদের জন্যঃ-
আপনি যদি সরকারী অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনাকে অবসরের কাগজ এর ফটোকপি ইংরেজী অনুবাদ ও নোটারাইজড এর অরিজিনাল কপি জমা দিতে হবে।

স্টুডেন্ট আইডি কার্ডঃ-
ছাত্র/ ছাত্রীদের ক্ষেত্রে তাদের স্টুডেন্ট আইডি কার্ড অথবা সর্বশেষ বেতন রশিদের ফটোকপির দরকার হবে।

নিকাহ নামাঃ-
আপনি যদি সদ্য বিবাহিত হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে নিকাহ নামা এর ফটোকপি সহ ইংরেজী অবুবাদ ও নোটারাইজড এর অরিজিনাল কপির দরকার হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *