কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এখনকার যুখে মানুষের কাজের অন্যতম মাধ্যম হয়ে উঠেছে। আর এই কম্পিউটার বা ল্যপটপের অন্যতম অনুষঙ্গ হলো কীবোর্ড। যেটার মাধ্যমে টাইপিং করা হয়। একটি ভালো মানের কীবোর্ড থাকলে আপনার টাইপিং করার অভিজ্ঞতা আরো ভালো হবে। অনেকেই জানেনা কীবোর্ড কেনার আগে কি দেখে কিনতে হবে। তাই আজ Feeglee.com এর পাঠকদের জন্য নিয়ে এলাম কীবোর্ড কেনার আগে যে বিষয়গুলো দেখে কিনবেন।

সুইচের উপর ভিত্তি করে স্বাধারনত বাজারে ৩ টাইপের কীবোর্ড পাওয়া যায়। যেমনঃ-
১) মেমব্রেন
২) মেকানিকাল
৩) মেম ক্যানিকাল


মেমব্রেন কীবোর্ডঃ-
এই কীবোর্ড নিয়ে আসলে তেমন কিছুই বলার নেই, এর কারণ হলো বাজারে ১৫০ টাকা থেকে শুরু করে আপনি হরেক রকমের মেম্ব্রেন কীবোর্ড দেখতে পারবেন। এসব কীবোর্ডের কী এর নিচে পাতলা একটি মেম্ব্রেন থাকে আপনি যখন কোন সুইচটি press করবেন মেম্ব্রেনটি নিচে থাকা PCB এর সাথে কন্টাক্ট করে আর সুইচটি রেজিস্টার করে থাকে। আপনি এই টাইপের সুইচে তেমন কোন ফিল পাবেন না এর কারণ সুইচ Press করলেই যেহেতু মেম্ব্রেন ব্যবহার করা হয়েছে সেজন্য ভালো ফিডব্যাক পাবেন না এওন্যই যার ফলে অনেক সময় টাইপিং মিসটেক হতে পারে আপনার, আর ফিডব্যাক না থাকার কারণে হ্যান্ড ফ্যাটিগ চলে আসার সম্ভবনা বেশ অনেক থাকে । মনে রাখবেন মেম্ব্রেন কীবোর্ডের সব থেকে বড় সুবিধা হল এর দাম আর এটি খুব সহজেই পাওয়া যায়।

মেকানিক্যাল কীবোর্ডঃ-
এই কীবোর্ডের প্রতিটা কী এর নিচে আলাদা করে এক বিশেষ ধরণের স্প্রিং বিশিষ্ট সুইচ ব্যবহার করা হয়। এবং সেগুলো একটি PCB দ্বারা সংযুক্ত করা থাকে। যেহেতু এই কীবোর্ডে স্প্রিং ব্যবহার করা হয়েছে সেজন্য প্রতিটি স্ট্রোকে আপনি একটি সাটিস্ফাইং ফিডব্যাক পাবেন এবং আপনি সহজেই বুঝতে পারবেন সুইচটি প্রেস করা হয়েছে । এই কীবোর্ডের সুবিধা নিয়ে কথা বললে আসলে সবদিক দিয়ে মেকানিক্যাল কীবোর্ডে সাধারণ মেম্ব্রেন কীবোর্ড থেকে অনেক সুপেরিওর।

মেম কানিক্যালঃ-
এই কীবোর্ডের সুইচের কথা বলতে গেলে অবশ্যই বলতে হয় চেরি কর্পোরেশনের কথা। আমেরিকাতে 1953 সালে প্রতিষ্ঠিত এই সংস্থা সর্বাধিক জনপ্রিয় সুইচ Cherry MX সিরিজটি 1985 সালে চালু করে। এই সুইচগুলিতে তারা বিভিন্ন রঙ ব্যবহার করেছে আর প্রতিটি রঙের সাথে সুইচের হ্যান্ডলিং বৈশিষ্ট্যগুলি যেমন ক্লিকের আচরণ , ফিল , অ্যাক্টিভিশন ফোর্স , একচুয়েশন ডিসটেন্স , ট্রাভেল ডিসটেন্স আলাদা করা, যা এখনকার সময়ে স্ট্যান্ডার্ড হিসেবে ব্যবহার করে থাকে । বর্তমানে Cherry MX এর মত অনেক ম্যানুফ্কযাচারার সমমানের মেকানিক্যাল সুইচ বাজারে নিয়ে এসেছে যার জন্য অনেক কম দামে মেকানিক্যাল কীবোর্ড বানানো সম্ভব হচ্ছে।

কীবোর্ডের মার্কেটে এখন যেসব সুইচ দেখা যায় তার একটি সংক্ষিপ্ত লিস্ট নিচে দেয়া হল :
১) Cherry MX : Red , Blue , Brown , Black , Speed , Green , White .
২) Razer : Green , Orange .
৪) Kailh : Red , Blue , Brown .
৫) Gateron : Red , Blue , Brown , Black , Green .
৬) Otemu : Red , Blue , Brown .
৭) Logitech : Romar-G .
8) SteelSeries : QS1 , Topre .

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *